ঢাকা ০৫:৪৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শ্রীকৃষ্ণের আর্বিভাব তিথিতে শোভা যাত্রা অনুষ্ঠিত

  • হিমাদ্রী সরদার
  • আপডেট সময় : ০৮:১২:৫৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • ১২২ খবরটি দেখা হয়েছে



মহাধুমধাম ও ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপণার মধ্যদিয়ে
শ্রীকৃষ্ণের আর্বিভাব তিথিতে বণাঢ্য শোভাযাত্রা ৬ই সেপ্টেম্বর খুলনার দাকোপের বাজুয়া-খুটাখালী আর্য্য হরিসভার আয়োজনে শ্রীকৃষ্ণের ৫২৪৯ তম জন্মাষ্টমী পালিত হচ্ছে।সেই পুণ্য অষ্টমী তিথিকে সাড়ম্বরে উদযাপনের লক্ষে দুই দিন ব্যাপী অনুষ্ঠান মালার প্রস্তুতি নিয়েছে আর্য্য হরিসভা।
আজ ৬ সেপ্টেম্বর সকাল ৯ টারদিকে একটি বণাঢ্য ধর্মীয় শোভাযাত্রা আর্য্য হরিসভা থেকে বের হয়ে এলাকার বিশেষ বিশেষ সড়ক প্রদক্ষিন করে আর্য্য হরিসভা অঙ্গনে এসে শেষ হয়।শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করেন হরি সভার মহাপরিচালক সরোজিত কুমার রায়, উপ মহা পরিচালক,মানস কুমার রায়, সাধারণ সম্পাদক বিজন কুমার রায়, সহ সাধারন প্রবীর রায় বাপী সহ সম্পাদক মন্ডলী ও কার্য নির্বাহী সদস্য বৃন্দ, বাজুয়া এস এস কলেজ, এলবিকে সরঃ মহিলা মহা বিদ্যাঃ,বাজুয়া ইউঃ উচ্চ বিদ্যাঃ, বাজুয়া বালিকা মাধ্যঃ বিদ্যাঃ, বাদামতলা মাধ্যঃ বিদ্যালয়ের শিক্ষক মন্ডলী ও শিক্ষক শিক্ষার্থী সহ এলাকার হাজারো ভক্ত বৃন্দ।আজ ও আগামীকাল ২ দিনব্যাপী অনুষ্ঠান চলমান থাকবে। এ লক্ষে ৬ সেপ্টেম্বর বিকাল ৩ টা থেকে গীতা স্কুলের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহনে গীতাপাঠ ও ধর্মীয় সংগীত পরিবেশন,সন্ধ্যা ৬৩০ মিনিটে নাম কির্তন ও সন্ধ্যা আরতী,৭ টায় ভাগবৎ আলোচনা ও ভজন সংগীত সহ বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহন করেছে আর্য্যহরিসভা কতৃপক্ষ। ভাদ্রমাসের কৃষ্ণা অষ্টমীতে জন্ম নিয়েছিলেন ভগবান শ্রীকৃষ্ণ।সেই পুণ্যতিথির স্মরণেদেশ জুড়ে পালিত হয় জন্মাঅষ্টমী। সেই সাথে বাংলার ঘরে ঘরে চলে গোপালের পূজা।এ বছর জন্মাষ্টমী তিথির বিস্তার ২ দিন ধরে পঞ্জিকা অনুসারে ৬ ও ৭ সেপ্টেম্বর পড়েছে জন্মাষ্টমী তিথি। শাস্ত্রমতে পৃথিবী থেকে দুষ্টের দমন ও সৃষ্টের পালনে আভির্ভূত হয়েছিলেন শ্রীকৃষ্ণ। সনাতন ধর্মালর্ম্বীদের বিশ্বাস পাশবিক শক্তি যখন ন্যায়নীতি, সত্য ও সুন্দর কে গ্রাস করতে উদ্যত হয়েছিল, তখন সেই শক্তিকে দমন করে মানবজাতির কল্যাণ এবং ন্যায়নীতি প্রতিষ্ঠার জন্য মহাবতার ভগবান শ্রীকৃষ্ণের আর্বিভাব ঘটেছিল। দুষ্টের দমন করতে এভাবেই যুগে যুগে ভগবান মানুষের মাঝে নেমে আসেন এবং সত্য সুন্দর কে প্রতিষ্ঠা করবেন।
পুরাণ অনুসারে রাত্রি বারোটার রোহিণী নক্ষত্রে শ্রীকৃষ্ণের জন্ম হয়েছিল।এই বিশ্বাস অনুসারে ৬ সেপ্টেম্বর বুধবার গৃহস্তরা জন্মাষ্টমী ব্রত পালন করতে পারেন।বৈষ্ণব সম্প্রদায়ের নিয়ম অনুসারে তাঁরা শ্রীকৃষ্ণ জন্মাষ্টমী পালন করছে ৭ সেপ্টেম্বর।

দাকোপের বাজুয়ায় মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে মানববন্ধন

শ্রীকৃষ্ণের আর্বিভাব তিথিতে শোভা যাত্রা অনুষ্ঠিত

আপডেট সময় : ০৮:১২:৫৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩



মহাধুমধাম ও ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপণার মধ্যদিয়ে
শ্রীকৃষ্ণের আর্বিভাব তিথিতে বণাঢ্য শোভাযাত্রা ৬ই সেপ্টেম্বর খুলনার দাকোপের বাজুয়া-খুটাখালী আর্য্য হরিসভার আয়োজনে শ্রীকৃষ্ণের ৫২৪৯ তম জন্মাষ্টমী পালিত হচ্ছে।সেই পুণ্য অষ্টমী তিথিকে সাড়ম্বরে উদযাপনের লক্ষে দুই দিন ব্যাপী অনুষ্ঠান মালার প্রস্তুতি নিয়েছে আর্য্য হরিসভা।
আজ ৬ সেপ্টেম্বর সকাল ৯ টারদিকে একটি বণাঢ্য ধর্মীয় শোভাযাত্রা আর্য্য হরিসভা থেকে বের হয়ে এলাকার বিশেষ বিশেষ সড়ক প্রদক্ষিন করে আর্য্য হরিসভা অঙ্গনে এসে শেষ হয়।শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করেন হরি সভার মহাপরিচালক সরোজিত কুমার রায়, উপ মহা পরিচালক,মানস কুমার রায়, সাধারণ সম্পাদক বিজন কুমার রায়, সহ সাধারন প্রবীর রায় বাপী সহ সম্পাদক মন্ডলী ও কার্য নির্বাহী সদস্য বৃন্দ, বাজুয়া এস এস কলেজ, এলবিকে সরঃ মহিলা মহা বিদ্যাঃ,বাজুয়া ইউঃ উচ্চ বিদ্যাঃ, বাজুয়া বালিকা মাধ্যঃ বিদ্যাঃ, বাদামতলা মাধ্যঃ বিদ্যালয়ের শিক্ষক মন্ডলী ও শিক্ষক শিক্ষার্থী সহ এলাকার হাজারো ভক্ত বৃন্দ।আজ ও আগামীকাল ২ দিনব্যাপী অনুষ্ঠান চলমান থাকবে। এ লক্ষে ৬ সেপ্টেম্বর বিকাল ৩ টা থেকে গীতা স্কুলের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহনে গীতাপাঠ ও ধর্মীয় সংগীত পরিবেশন,সন্ধ্যা ৬৩০ মিনিটে নাম কির্তন ও সন্ধ্যা আরতী,৭ টায় ভাগবৎ আলোচনা ও ভজন সংগীত সহ বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহন করেছে আর্য্যহরিসভা কতৃপক্ষ। ভাদ্রমাসের কৃষ্ণা অষ্টমীতে জন্ম নিয়েছিলেন ভগবান শ্রীকৃষ্ণ।সেই পুণ্যতিথির স্মরণেদেশ জুড়ে পালিত হয় জন্মাঅষ্টমী। সেই সাথে বাংলার ঘরে ঘরে চলে গোপালের পূজা।এ বছর জন্মাষ্টমী তিথির বিস্তার ২ দিন ধরে পঞ্জিকা অনুসারে ৬ ও ৭ সেপ্টেম্বর পড়েছে জন্মাষ্টমী তিথি। শাস্ত্রমতে পৃথিবী থেকে দুষ্টের দমন ও সৃষ্টের পালনে আভির্ভূত হয়েছিলেন শ্রীকৃষ্ণ। সনাতন ধর্মালর্ম্বীদের বিশ্বাস পাশবিক শক্তি যখন ন্যায়নীতি, সত্য ও সুন্দর কে গ্রাস করতে উদ্যত হয়েছিল, তখন সেই শক্তিকে দমন করে মানবজাতির কল্যাণ এবং ন্যায়নীতি প্রতিষ্ঠার জন্য মহাবতার ভগবান শ্রীকৃষ্ণের আর্বিভাব ঘটেছিল। দুষ্টের দমন করতে এভাবেই যুগে যুগে ভগবান মানুষের মাঝে নেমে আসেন এবং সত্য সুন্দর কে প্রতিষ্ঠা করবেন।
পুরাণ অনুসারে রাত্রি বারোটার রোহিণী নক্ষত্রে শ্রীকৃষ্ণের জন্ম হয়েছিল।এই বিশ্বাস অনুসারে ৬ সেপ্টেম্বর বুধবার গৃহস্তরা জন্মাষ্টমী ব্রত পালন করতে পারেন।বৈষ্ণব সম্প্রদায়ের নিয়ম অনুসারে তাঁরা শ্রীকৃষ্ণ জন্মাষ্টমী পালন করছে ৭ সেপ্টেম্বর।