ঢাকা ১০:১১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভারতকে ২-১ ব্যবধানে হারালো বাংলাদেশের মেয়েরা

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৬:৪৮:৪১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুলাই ২০২৩
  • ৪৪ খবরটি দেখা হয়েছে

আফসোস হতেই পারে। দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিটা যদি হাতের মুঠো থেকে ছুটে না যেতো! বাংলাদেশের মেয়েরাই আজ মাততে পারতো সিরিজজয়ের উল্লাসে। সেটা হয়নি। তবে শেষ ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে সহজ জয়ই তুলে নিয়েছে নিগার সুলতানার দল।

মিরপুর শেরে বাংলায় সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টিতে ভারতকে ৪ উইকেট আর ১০ বল হাতে রেখে হারিয়েছে বাংলাদেশ। ভারতীয় মেয়েরা সিরিজ জিতেছে ২-১ ব্যবধানে।

সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ভারতের কাছে ৭ উইকেটে হারলেও দ্বিতীয় ম্যাচে জয়ের পথে ছিল বাংলাদেশ। ভারতকে মাত্র ৯৫ রানে আটকে দিয়ে ৫ উইকেটে ৮৬ রান তুলে ফেলেছিল নিগার সুলতানার দল।

কিন্তু এরপর মাত্র ১ রান যোগ করতেই বাকি ৫ উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। হাতের মুঠোয় থাকা ম্যাচ তুলে দেয় ভারতের হাতে।

এবার অবশ্য আর ভুল করেনি বাংলাদেশ। সিরিজ হারানোর পর শেষ ম্যাচে এসে ভারতকে হেসেখেলেই হারিয়েছে।

শেরে বাংলায় টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং বেছে নিয়েছিল ভারত। বাংলাদেশি বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ৯ উইকেটে ১০২ রানের বেশি করতে পারেনি সফরকারীরা।

ভারতের অধিনায়ক হারমানপ্রিত কাউর ৪১ বলে ৪০, জেমিমাহ রদ্রিগেজ ২৬ বলে ২৮, ইয়াসতিকা ভাটিয়া ১৭ বলে ১২ আর শেফালি ভার্মা করেন ১৪ বলে ১১ রান। বাকিদের দশের ঘরও ছুঁতে দেননি বাংলাদেশি বোলাররা।

১৮ বছর বয়সী লেগস্পিনার রাবেয়া খান ৪ ওভারে মাত্র ১৬ রান দিয়ে একাই নেন ৩টি উইকেট। সুলতানা খাতুন ১৭ রানে শিকার করেন দুটি।

জবাবে ১৬ রানে ২ উইকেট হারালেও ওপেনার শামীমা সুলতানার দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। দলকে ৮৫ রান পর্যন্ত নিয়ে থামেন শামীমা। ৪৬ বলে ৩ বাউন্ডারিতে তিনি করেন ৪২ রান।

অধিনায়ক নিগার সুলতানা ২০ বলে ১৪, ওপেনার সাথী রানী ১০ বলে ১০ আর শেষদিকে সুলতানা খাতুন ৮ বলে ১২ করে আউট হন। নাহিদা আক্তার ৬ বলে ১০ রানে অপরাজিত থাকেন। তার সঙ্গে ৮ বলে ৭ রানে ছিলেন রিতু মনি। ১৮.২ ওভারে ম্যাচ জিতে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ।

ভারতের মিন্নু মানি আর দেবিকা ভাইদা নেন দুটি করে উইকেট।

ট্যাগ :

খুলনার দাকোপে ভূমিসেবা সপ্তাহ উদযাপন হয়েছে

ভারতকে ২-১ ব্যবধানে হারালো বাংলাদেশের মেয়েরা

আপডেট সময় : ০৬:৪৮:৪১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুলাই ২০২৩

আফসোস হতেই পারে। দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিটা যদি হাতের মুঠো থেকে ছুটে না যেতো! বাংলাদেশের মেয়েরাই আজ মাততে পারতো সিরিজজয়ের উল্লাসে। সেটা হয়নি। তবে শেষ ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে সহজ জয়ই তুলে নিয়েছে নিগার সুলতানার দল।

মিরপুর শেরে বাংলায় সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টিতে ভারতকে ৪ উইকেট আর ১০ বল হাতে রেখে হারিয়েছে বাংলাদেশ। ভারতীয় মেয়েরা সিরিজ জিতেছে ২-১ ব্যবধানে।

সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ভারতের কাছে ৭ উইকেটে হারলেও দ্বিতীয় ম্যাচে জয়ের পথে ছিল বাংলাদেশ। ভারতকে মাত্র ৯৫ রানে আটকে দিয়ে ৫ উইকেটে ৮৬ রান তুলে ফেলেছিল নিগার সুলতানার দল।

কিন্তু এরপর মাত্র ১ রান যোগ করতেই বাকি ৫ উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। হাতের মুঠোয় থাকা ম্যাচ তুলে দেয় ভারতের হাতে।

এবার অবশ্য আর ভুল করেনি বাংলাদেশ। সিরিজ হারানোর পর শেষ ম্যাচে এসে ভারতকে হেসেখেলেই হারিয়েছে।

শেরে বাংলায় টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং বেছে নিয়েছিল ভারত। বাংলাদেশি বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ৯ উইকেটে ১০২ রানের বেশি করতে পারেনি সফরকারীরা।

ভারতের অধিনায়ক হারমানপ্রিত কাউর ৪১ বলে ৪০, জেমিমাহ রদ্রিগেজ ২৬ বলে ২৮, ইয়াসতিকা ভাটিয়া ১৭ বলে ১২ আর শেফালি ভার্মা করেন ১৪ বলে ১১ রান। বাকিদের দশের ঘরও ছুঁতে দেননি বাংলাদেশি বোলাররা।

১৮ বছর বয়সী লেগস্পিনার রাবেয়া খান ৪ ওভারে মাত্র ১৬ রান দিয়ে একাই নেন ৩টি উইকেট। সুলতানা খাতুন ১৭ রানে শিকার করেন দুটি।

জবাবে ১৬ রানে ২ উইকেট হারালেও ওপেনার শামীমা সুলতানার দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। দলকে ৮৫ রান পর্যন্ত নিয়ে থামেন শামীমা। ৪৬ বলে ৩ বাউন্ডারিতে তিনি করেন ৪২ রান।

অধিনায়ক নিগার সুলতানা ২০ বলে ১৪, ওপেনার সাথী রানী ১০ বলে ১০ আর শেষদিকে সুলতানা খাতুন ৮ বলে ১২ করে আউট হন। নাহিদা আক্তার ৬ বলে ১০ রানে অপরাজিত থাকেন। তার সঙ্গে ৮ বলে ৭ রানে ছিলেন রিতু মনি। ১৮.২ ওভারে ম্যাচ জিতে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ।

ভারতের মিন্নু মানি আর দেবিকা ভাইদা নেন দুটি করে উইকেট।