ঢাকা ০৬:৩৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বরিশালে বিপৎসীমার ওপরে ১০ নদীর পানি

  • স্টাফ রিপোর্টার
  • আপডেট সময় : ০৯:২৪:৫৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৪ অগাস্ট ২০২৩
  • ৬১ খবরটি দেখা হয়েছে

বরিশালে আবারও নদ-নদীর পানি বাড়ছে। বিভাগের ১০টি নদীর পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। হঠাৎ নদ-নদীর পানি বেড়ে বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে দক্ষিণাঞ্চলে। চর ও নিম্নাঞ্চল, ফসলের ক্ষেত তলিয়ে গেছে ইতিমধ্যে। বরিশাল নগরীর বিভিন্ন সড়কও ভরা জোয়ারের সময় তলিয়ে যাচ্ছে। পানি বেড়ে যাওয়ায় বহু ঘেরের মাছ ভেসে গেছে।

বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (৩ আগস্ট) ভোলার তজুমুদ্দিন উপজেলায় মেঘনা ও সুরমা নদীর পানি বিপৎসীমার (২.২২ মিটার) ১.২ মিটার ওপর দিয়ে এবং দৌলতখান পয়েন্টে এই দুই নদীর পানি বিপৎসীমার (২.৭৫ মিটার) ৬৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, হিজলা পয়েন্টে ধর্মগঞ্জ নদীর পানি বিপৎসীমার (২.৫০ মিটার) ৩৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, বিষখালী নদীর পানি বরগুনা পয়েন্টে বিপৎসীমার (১.৯৭ মিটার) ৪৩ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, একই নদীর অন্য ৩ টি পয়েন্ট যথাক্রমে পাথরঘাটা পয়েন্টে বিপৎসীমার (১.৮৫ মিটার) ৫৭ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, বেতাগী পয়েন্টে বিপৎসীমার (১.৬৮ মিটার) ৩১ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে ও ঝালকাঠী পয়েন্টে বিপৎসীমার (১.৪০ মিটার) ১০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, পিরোজপুরে বলেশ্বর নদীর পানি বিপৎসীমার (১.৪৯ মিটার) ৩৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে এবং কঁচা নদীর পানি উমেদপুর পয়েন্টে বিপৎসীমার (১.৬৫ মিটার) ২৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, মীর্জাগঞ্জ পয়েন্টে বুড়িশ্বর ও পায়রা নদীর পানি বিপৎসীমার (১.৮০ মিটার) ২৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে এবং আমতলী পয়েন্টে এই দুই নদীর পানি বিপৎসীমার (২.০৭) ১৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, বরিশালে কীর্তনখোলা নদীর পানি বিপৎসীমার (২.১৪ মিটার) ১৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে এবং ভোলা খেয়াঘাট পয়েন্টে তেতুলিয়া নদীর পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে।

এছাড়া, বুড়িশ্বর নদীর পানি বাকেরগঞ্জ পয়েন্টে বিপৎসীমার ৩ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে, লোহালিয়া নদীর পানি কাটিপাড়া এলাকায় বিপৎসীমার ১৬ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে, বাবুগঞ্জে বাবুগঞ্জ (সুগন্ধা) নদীর পানি বিপৎসীমার ৯ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে।

বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. রাকিব হোসেন জানান, ভরা পূর্নিমায় নদ-নদীর পানি স্বাভাবিকের চেয়ে বৃদ্ধি পায়। ধীরে ধীরে পানি কমে যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, হঠাৎ নদ-নদীর পানি বেড়ে বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে দক্ষিণাঞ্চলে। চর ও নিম্নাঞ্চল, ফসলের ক্ষেত তলিয়ে গেছে ইতিমধ্যে। বরিশাল নগরীর বিভিন্ন সড়কও ভরা জোয়ারের সময় তলিয়ে যাচ্ছে। পানি বেড়ে যাওয়ায় বহু ঘেরের মাছ ভেসে গেছে।

ট্যাগ :

দাকোপের বাজুয়ায় মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে মানববন্ধন

বরিশালে বিপৎসীমার ওপরে ১০ নদীর পানি

আপডেট সময় : ০৯:২৪:৫৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৪ অগাস্ট ২০২৩

বরিশালে আবারও নদ-নদীর পানি বাড়ছে। বিভাগের ১০টি নদীর পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। হঠাৎ নদ-নদীর পানি বেড়ে বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে দক্ষিণাঞ্চলে। চর ও নিম্নাঞ্চল, ফসলের ক্ষেত তলিয়ে গেছে ইতিমধ্যে। বরিশাল নগরীর বিভিন্ন সড়কও ভরা জোয়ারের সময় তলিয়ে যাচ্ছে। পানি বেড়ে যাওয়ায় বহু ঘেরের মাছ ভেসে গেছে।

বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (৩ আগস্ট) ভোলার তজুমুদ্দিন উপজেলায় মেঘনা ও সুরমা নদীর পানি বিপৎসীমার (২.২২ মিটার) ১.২ মিটার ওপর দিয়ে এবং দৌলতখান পয়েন্টে এই দুই নদীর পানি বিপৎসীমার (২.৭৫ মিটার) ৬৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, হিজলা পয়েন্টে ধর্মগঞ্জ নদীর পানি বিপৎসীমার (২.৫০ মিটার) ৩৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, বিষখালী নদীর পানি বরগুনা পয়েন্টে বিপৎসীমার (১.৯৭ মিটার) ৪৩ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, একই নদীর অন্য ৩ টি পয়েন্ট যথাক্রমে পাথরঘাটা পয়েন্টে বিপৎসীমার (১.৮৫ মিটার) ৫৭ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, বেতাগী পয়েন্টে বিপৎসীমার (১.৬৮ মিটার) ৩১ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে ও ঝালকাঠী পয়েন্টে বিপৎসীমার (১.৪০ মিটার) ১০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, পিরোজপুরে বলেশ্বর নদীর পানি বিপৎসীমার (১.৪৯ মিটার) ৩৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে এবং কঁচা নদীর পানি উমেদপুর পয়েন্টে বিপৎসীমার (১.৬৫ মিটার) ২৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, মীর্জাগঞ্জ পয়েন্টে বুড়িশ্বর ও পায়রা নদীর পানি বিপৎসীমার (১.৮০ মিটার) ২৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে এবং আমতলী পয়েন্টে এই দুই নদীর পানি বিপৎসীমার (২.০৭) ১৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে, বরিশালে কীর্তনখোলা নদীর পানি বিপৎসীমার (২.১৪ মিটার) ১৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে এবং ভোলা খেয়াঘাট পয়েন্টে তেতুলিয়া নদীর পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে।

এছাড়া, বুড়িশ্বর নদীর পানি বাকেরগঞ্জ পয়েন্টে বিপৎসীমার ৩ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে, লোহালিয়া নদীর পানি কাটিপাড়া এলাকায় বিপৎসীমার ১৬ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে, বাবুগঞ্জে বাবুগঞ্জ (সুগন্ধা) নদীর পানি বিপৎসীমার ৯ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে।

বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. রাকিব হোসেন জানান, ভরা পূর্নিমায় নদ-নদীর পানি স্বাভাবিকের চেয়ে বৃদ্ধি পায়। ধীরে ধীরে পানি কমে যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, হঠাৎ নদ-নদীর পানি বেড়ে বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে দক্ষিণাঞ্চলে। চর ও নিম্নাঞ্চল, ফসলের ক্ষেত তলিয়ে গেছে ইতিমধ্যে। বরিশাল নগরীর বিভিন্ন সড়কও ভরা জোয়ারের সময় তলিয়ে যাচ্ছে। পানি বেড়ে যাওয়ায় বহু ঘেরের মাছ ভেসে গেছে।