ঢাকা ১০:১৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বরিশালে আড়িয়াল খাঁ নদীতে জালে ধরা পড়েছে এক কুমির

  • স্টাফ রিপোর্টার
  • আপডেট সময় : ০৮:২৫:২৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুলাই ২০২৩
  • ৫৬ খবরটি দেখা হয়েছে

বরিশালে মুলাদী উপজেলার আড়িয়াল খাঁ নদীতে জেলেদের জালে ধরা পড়েছে এক কুমির। সোমবার (১৭ জুলাই) সকাল ৮টার দিকে কুমিরটি ধরা পড়েছে বলে নাজিরপুর নৌ-পুলিশের পরিদর্শক প্রদীপ কুমার মিত্র জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, পাঙাস মাছ শিকারের জন্য মোটা সুতার বড় ফাঁসের জাল ফেলেছিল জেলেরা। কুমির জালে আটকে পড়ে। তখন জেলেরা জাল টেনে কুমিরটি তীরে নিয়ে আসেন।

কুমিরটি লম্বায় সাড়ে ৫ ফুট হবে জানিয়ে তিনি বলেন, বর্তমানে জালের মধ্যে নদীতে ভাসিয়ে রাখা হয়েছে কুমিরটিকে।

জেলে জাবুল হোসেন তালুকদার বলেন, আড়িয়াল খাঁ নদীর মুলাদী উপজেরার নাজিরপুর ইউনিয়নের ঘোষের হাট ভুইয়া বাড়ির সংলগ্ন এলাকায় প্রতিদিনের মতো সকালে জাল ফেলেন। আইর ও পাঙাস মাছ শিকারের ওই জাল তোলার সময় অনেক ভারী মনে হয়। জাল টেনে কাছে আনার পর কুমিরটি দেখতে পেয়েছি। প্রথমে ভয় পেলেও পরে কৌশলে টেনে নদীর তীরে এনে রেখেছি।

নাজিরপুর ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য (মেম্বার) রবিউল আলম বলেন, নাইলনের সুতা দিয়ে তৈরি জালে ধরা পড়েছে কুমিরটি। কুমিরটি জালের মধ্যে আটকে নদীর তীরে এনে নৌকার সঙ্গে বেঁধে রাখা হয়েছে। যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

বরিশাল জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. নুরুল আলম বলেন, কুমিরটি মিঠা পানির দেশীয় প্রজাতির। এটি বিলুপ্ত প্রজাতির। তাই সংরক্ষণ করা প্রয়োজন। চিড়িয়াখানায় দেওয়ার জন্য চেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু তারা আগ্রহ দেখাচ্ছে না। কোনো চিড়িয়াখানা না নিলে সাগর মোহনায় ছেড়ে দেওয়া হবে। এ জন্য বনবিভাগেরও সহায়তা নিতে হবে।

মুলাদী উপজেলা বন কর্মকর্তা মো. খলিলুর রহমান বলেন, সুন্দরবন ও আশপাশের এলাকায় এদের বাস। নদীর পানি ও স্রোত বেড়ে যাওয়ায় ভেসে চলে আসা কুমিরটি নিতে খুলনা থেকে লোক আসছে।

ট্যাগ :

খুলনার দাকোপে ভূমিসেবা সপ্তাহ উদযাপন হয়েছে

বরিশালে আড়িয়াল খাঁ নদীতে জালে ধরা পড়েছে এক কুমির

আপডেট সময় : ০৮:২৫:২৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুলাই ২০২৩

বরিশালে মুলাদী উপজেলার আড়িয়াল খাঁ নদীতে জেলেদের জালে ধরা পড়েছে এক কুমির। সোমবার (১৭ জুলাই) সকাল ৮টার দিকে কুমিরটি ধরা পড়েছে বলে নাজিরপুর নৌ-পুলিশের পরিদর্শক প্রদীপ কুমার মিত্র জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, পাঙাস মাছ শিকারের জন্য মোটা সুতার বড় ফাঁসের জাল ফেলেছিল জেলেরা। কুমির জালে আটকে পড়ে। তখন জেলেরা জাল টেনে কুমিরটি তীরে নিয়ে আসেন।

কুমিরটি লম্বায় সাড়ে ৫ ফুট হবে জানিয়ে তিনি বলেন, বর্তমানে জালের মধ্যে নদীতে ভাসিয়ে রাখা হয়েছে কুমিরটিকে।

জেলে জাবুল হোসেন তালুকদার বলেন, আড়িয়াল খাঁ নদীর মুলাদী উপজেরার নাজিরপুর ইউনিয়নের ঘোষের হাট ভুইয়া বাড়ির সংলগ্ন এলাকায় প্রতিদিনের মতো সকালে জাল ফেলেন। আইর ও পাঙাস মাছ শিকারের ওই জাল তোলার সময় অনেক ভারী মনে হয়। জাল টেনে কাছে আনার পর কুমিরটি দেখতে পেয়েছি। প্রথমে ভয় পেলেও পরে কৌশলে টেনে নদীর তীরে এনে রেখেছি।

নাজিরপুর ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য (মেম্বার) রবিউল আলম বলেন, নাইলনের সুতা দিয়ে তৈরি জালে ধরা পড়েছে কুমিরটি। কুমিরটি জালের মধ্যে আটকে নদীর তীরে এনে নৌকার সঙ্গে বেঁধে রাখা হয়েছে। যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

বরিশাল জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. নুরুল আলম বলেন, কুমিরটি মিঠা পানির দেশীয় প্রজাতির। এটি বিলুপ্ত প্রজাতির। তাই সংরক্ষণ করা প্রয়োজন। চিড়িয়াখানায় দেওয়ার জন্য চেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু তারা আগ্রহ দেখাচ্ছে না। কোনো চিড়িয়াখানা না নিলে সাগর মোহনায় ছেড়ে দেওয়া হবে। এ জন্য বনবিভাগেরও সহায়তা নিতে হবে।

মুলাদী উপজেলা বন কর্মকর্তা মো. খলিলুর রহমান বলেন, সুন্দরবন ও আশপাশের এলাকায় এদের বাস। নদীর পানি ও স্রোত বেড়ে যাওয়ায় ভেসে চলে আসা কুমিরটি নিতে খুলনা থেকে লোক আসছে।