ঢাকা ০৮:২৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পটুয়াখালীতে একদিনে নতুন করে আরডেঙ্গু রোগী শনাক্ত

  • স্টাফ রিপোর্টার
  • আপডেট সময় : ০৬:২৭:০৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুলাই ২০২৩
  • ৭০ খবরটি দেখা হয়েছে

পটুয়াখালীতে একদিনে নতুন করে আরও ২২ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৮০ জনে।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুলাই) সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় নতুন ওই ২২ রোগী শনাক্ত হয়। আক্রান্তরা পটুয়াখালী সদর হাসপাতালসহ জেলার বিভিন্ন উপজেলার হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এ ছাড়া পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রয়েছেন ৩৭ জন। মোট ১৭০ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। তবে এখন পর্যন্ত কোনো রোগীর মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি বলে জানায় জেলার সিভিল সার্জন সূত্র।

ঢাকা থেকে আসা সদর উপজেলা লোহলিয়া এলাকার মো. মামুন হোসেন বলেন, ঈদ করতে বাড়িতে ফেরার পরই আমার জ্বর হয়। পরে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নমুনা পরীক্ষায় আমার ডেঙ্গু ধরা পড়ে।

পটুয়াখালী সিভিল সার্জন এসএম কবির হাসান জানান, পটুয়াখালী জেলা শহরসহ বিভিন্ন উপজেলায় ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। আমাদের পর্যাপ্ত পরিমাণ ওষুধ মজুদ রয়েছে। প্রতিটি উপজেলায় একটি করে ডেঙ্গু ওয়ার্ড খোলার পরিকল্পনা আমাদের রয়েছে। এতে করে ডেঙ্গু রোগীরা ভালোভাবে চিকিৎসা পাবেন।

পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের তত্ত্বাবধয়ক দিলরুবা ইয়াসমিন লিজা বলেন, আমারা ডেঙ্গু রোগীর জন্য আলাদা ওয়ার্ড খুলেছি। ডেঙ্গু রোগীর সেবা দিতে আমাদের সব প্রস্তুতি নেয়া আছে।

ট্যাগ :

খুলনার দাকোপে ভূমিসেবা সপ্তাহ উদযাপন হয়েছে

পটুয়াখালীতে একদিনে নতুন করে আরডেঙ্গু রোগী শনাক্ত

আপডেট সময় : ০৬:২৭:০৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুলাই ২০২৩

পটুয়াখালীতে একদিনে নতুন করে আরও ২২ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৮০ জনে।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুলাই) সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় নতুন ওই ২২ রোগী শনাক্ত হয়। আক্রান্তরা পটুয়াখালী সদর হাসপাতালসহ জেলার বিভিন্ন উপজেলার হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এ ছাড়া পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রয়েছেন ৩৭ জন। মোট ১৭০ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। তবে এখন পর্যন্ত কোনো রোগীর মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি বলে জানায় জেলার সিভিল সার্জন সূত্র।

ঢাকা থেকে আসা সদর উপজেলা লোহলিয়া এলাকার মো. মামুন হোসেন বলেন, ঈদ করতে বাড়িতে ফেরার পরই আমার জ্বর হয়। পরে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নমুনা পরীক্ষায় আমার ডেঙ্গু ধরা পড়ে।

পটুয়াখালী সিভিল সার্জন এসএম কবির হাসান জানান, পটুয়াখালী জেলা শহরসহ বিভিন্ন উপজেলায় ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। আমাদের পর্যাপ্ত পরিমাণ ওষুধ মজুদ রয়েছে। প্রতিটি উপজেলায় একটি করে ডেঙ্গু ওয়ার্ড খোলার পরিকল্পনা আমাদের রয়েছে। এতে করে ডেঙ্গু রোগীরা ভালোভাবে চিকিৎসা পাবেন।

পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের তত্ত্বাবধয়ক দিলরুবা ইয়াসমিন লিজা বলেন, আমারা ডেঙ্গু রোগীর জন্য আলাদা ওয়ার্ড খুলেছি। ডেঙ্গু রোগীর সেবা দিতে আমাদের সব প্রস্তুতি নেয়া আছে।