ঢাকা ০৭:৩১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নলছিটি পৌরসভায় বিদ্যুত বিল বকেয়া প্রায় ১ কোটি টাকা

  • স্টাফ রিপোর্টার
  • আপডেট সময় : ০৮:১৭:১৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ জুলাই ২০২৩
  • ৮১ খবরটি দেখা হয়েছে

ঝালকাঠির নলছিটি পৌরসভায় ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিশন কোম্পানি লিমিটেড (ওজোপাডিকোর) জুন-২০২৩ পর্যন্ত সুদ ও সার্ভিস চার্জসহ বিদ্যুৎ বিল বকেয়া পড়েছে ৯৫ লাখ ৬০ হাজার ১৬৬ টাকা। বিগত কয়েক বছর ও বর্তমানে কয়েক মাস যাবৎ নিয়মিত বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ না করায় এ বকেয়া পড়েছে বলে জানিয়েছে নলছিটি ওজোপাডিকোর আবাসিক প্রকৌশলী। এছাড়াও উপজেলার দপদপিয়া ইউনিয়ন পরিষদের বকেয়া রয়েছে ১ লাখ ৯৩ হাজার ১৫ টাকা।

খবর নিয়ে জানা গেছে, নলছিটি পৌরসভার পৌর পরিষদ, পানি পরিশোধনাগার দুইটি ও সড়ক বাতিসহ কয়েকটি বিদ্যুৎ সংযোগের হিসাব নম্বর খোলা রয়েছে। এসব হিসাব নম্বরের কোনোটিতেই গত কয়েক বছর ধরে নিয়মিত বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করা হয়নি। বর্তমান পৌর মেয়র নির্বাচিত হয়ে প্রথমদিকে কয়েক মাস নিয়মিতভাবে প্রতিমাসের বিল ও পূর্বের কিছু বকেয়া পরিশোধ করেন। পরবর্তিতে এ ধারা অব্যাহত রাখতে না পরায় পূর্বের ও বর্তমান মিলে জুন পর্যন্ত প্রায় কোটি টাকার কাছাকাছি বকেয়া বিদ্যুৎ বিল দাড়িয়েছে।

পৌরসভার সচেতনমহল দেশের চলমান বিদ্যুৎ ঘাটতি ও লোডশেডিংয়ের প্রধান কারণ সরকারি এসব বড় অফিসগুলোতে লাখ লাখ টাকা বিদ্যুৎ বিল বকেয়া পড়ে থাকাকে বিদ্যুৎ ঘাটতির প্রধান কারণ হিসেবে দেখছেন।

পৌরসভার বকেয়া বিদ্যুৎ বিলের ব্যাপারে নলছিটি ওজোপাডিকোর আবাসিক প্রকৌশলী মো. সোহেল রানা বলেন, পৌরসভা কর্তৃপক্ষকে বিল পরিশোধের ব্যাপারে নিয়মিত তাগাদা দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া প্রতি মাসে লিখিত চিঠির পাশাপাশি মৌখিকভাবেও জানাচ্ছি। তিনি আরও বলেন, বকেয়া বিদ্যুৎ বিলের অধিকাংশ টাকা আমি যোগদান করার পূর্বের। এবছরের চলতি কয়েক মাস ছাড়া বাকি বিল নিয়মিত পরিশোধ করা হয়ছে।

দপদপিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. সোহরাব হোসেন বাবুল মৃধাকে ফোন দিলে ফোন রিসিভ না করায় তার সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি ।

নলছিটি পৌরসভার পৌর নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জাকির হোসেন বলেন, ওজোপাডিকোর আবাসিক প্রকৌশলীর সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ করে নতুন ও পুরাতন বিদ্যুৎ বিল পযার্য়ক্রমে পরিশোধ করে যাচ্ছি। পৌরসভার ফান্ডে টাকা জমলে বকেয়া বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করা হবে।

পৌরসভার উপ-সহকারি প্রকৌশলী মো. মাহবুবুর রহমান মাছুম বলেন, পৌরসভার বকেয়া বিদ্যুৎ বিল দ্রুত সময়ের মধ্যে পরিশোধ করার জন্য আমরা আন্তরিকতার সাথে চেষ্টা করে যাচ্ছি।

নলছিটি পৌরসভার মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল ওয়াহেদ খান বলেন, আমি মেয়র হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে নিয়মিত বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করেছি। পূর্বের বকেয়া টাকাও কিছুটা পরিশোধ করেছি।বাকি টাকাগুলো পর্যায়ক্রমে পরিশোধ করা হবে।

ট্যাগ :

দাকোপের বাজুয়ায় মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে মানববন্ধন

নলছিটি পৌরসভায় বিদ্যুত বিল বকেয়া প্রায় ১ কোটি টাকা

আপডেট সময় : ০৮:১৭:১৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ জুলাই ২০২৩

ঝালকাঠির নলছিটি পৌরসভায় ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিশন কোম্পানি লিমিটেড (ওজোপাডিকোর) জুন-২০২৩ পর্যন্ত সুদ ও সার্ভিস চার্জসহ বিদ্যুৎ বিল বকেয়া পড়েছে ৯৫ লাখ ৬০ হাজার ১৬৬ টাকা। বিগত কয়েক বছর ও বর্তমানে কয়েক মাস যাবৎ নিয়মিত বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ না করায় এ বকেয়া পড়েছে বলে জানিয়েছে নলছিটি ওজোপাডিকোর আবাসিক প্রকৌশলী। এছাড়াও উপজেলার দপদপিয়া ইউনিয়ন পরিষদের বকেয়া রয়েছে ১ লাখ ৯৩ হাজার ১৫ টাকা।

খবর নিয়ে জানা গেছে, নলছিটি পৌরসভার পৌর পরিষদ, পানি পরিশোধনাগার দুইটি ও সড়ক বাতিসহ কয়েকটি বিদ্যুৎ সংযোগের হিসাব নম্বর খোলা রয়েছে। এসব হিসাব নম্বরের কোনোটিতেই গত কয়েক বছর ধরে নিয়মিত বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করা হয়নি। বর্তমান পৌর মেয়র নির্বাচিত হয়ে প্রথমদিকে কয়েক মাস নিয়মিতভাবে প্রতিমাসের বিল ও পূর্বের কিছু বকেয়া পরিশোধ করেন। পরবর্তিতে এ ধারা অব্যাহত রাখতে না পরায় পূর্বের ও বর্তমান মিলে জুন পর্যন্ত প্রায় কোটি টাকার কাছাকাছি বকেয়া বিদ্যুৎ বিল দাড়িয়েছে।

পৌরসভার সচেতনমহল দেশের চলমান বিদ্যুৎ ঘাটতি ও লোডশেডিংয়ের প্রধান কারণ সরকারি এসব বড় অফিসগুলোতে লাখ লাখ টাকা বিদ্যুৎ বিল বকেয়া পড়ে থাকাকে বিদ্যুৎ ঘাটতির প্রধান কারণ হিসেবে দেখছেন।

পৌরসভার বকেয়া বিদ্যুৎ বিলের ব্যাপারে নলছিটি ওজোপাডিকোর আবাসিক প্রকৌশলী মো. সোহেল রানা বলেন, পৌরসভা কর্তৃপক্ষকে বিল পরিশোধের ব্যাপারে নিয়মিত তাগাদা দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া প্রতি মাসে লিখিত চিঠির পাশাপাশি মৌখিকভাবেও জানাচ্ছি। তিনি আরও বলেন, বকেয়া বিদ্যুৎ বিলের অধিকাংশ টাকা আমি যোগদান করার পূর্বের। এবছরের চলতি কয়েক মাস ছাড়া বাকি বিল নিয়মিত পরিশোধ করা হয়ছে।

দপদপিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. সোহরাব হোসেন বাবুল মৃধাকে ফোন দিলে ফোন রিসিভ না করায় তার সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি ।

নলছিটি পৌরসভার পৌর নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জাকির হোসেন বলেন, ওজোপাডিকোর আবাসিক প্রকৌশলীর সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ করে নতুন ও পুরাতন বিদ্যুৎ বিল পযার্য়ক্রমে পরিশোধ করে যাচ্ছি। পৌরসভার ফান্ডে টাকা জমলে বকেয়া বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করা হবে।

পৌরসভার উপ-সহকারি প্রকৌশলী মো. মাহবুবুর রহমান মাছুম বলেন, পৌরসভার বকেয়া বিদ্যুৎ বিল দ্রুত সময়ের মধ্যে পরিশোধ করার জন্য আমরা আন্তরিকতার সাথে চেষ্টা করে যাচ্ছি।

নলছিটি পৌরসভার মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল ওয়াহেদ খান বলেন, আমি মেয়র হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে নিয়মিত বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করেছি। পূর্বের বকেয়া টাকাও কিছুটা পরিশোধ করেছি।বাকি টাকাগুলো পর্যায়ক্রমে পরিশোধ করা হবে।