ঢাকা ০১:৫৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দুর্গাপূজা উপলক্ষে বরিশালে বেড়েছে ইলিশের দাম

  • স্টাফ রিপোর্টার
  • আপডেট সময় : ১১:১৪:৪১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • ৫৫ খবরটি দেখা হয়েছে

দুর্গাপূজা উপলক্ষে ভারতে ৩ হাজার ৯৫০ মেট্রিক টন ইলিশ রপ্তানির অনুমতি দিয়েছে সরকার। রপ্তানির অনুমতি দেওয়ার একদিন পরই আজ বেনাপোল দিয়ে প্রায় ৪৬ মেট্রিক টন ইলিশ ভারতে গেছে। এর মধ্যেই বরিশালে আড়তে ইলিশের দাম মণপ্রতি দুই হাজার টাকা বেড়ে গেছে।

বরিশালের মৎস্য কর্মকর্তা (ইলিশ) বিমল চন্দ্র দাস ইলিশের দাম বেড়ে যাওয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গতকাল ৬০০-৯০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ মণপ্রতি ৫২ হাজার টাকায় বিক্রি হলেও আজ বিক্রি হচ্ছে ৫৪ হাজার টাকা।

ইলিশ রপ্তানিকারক মাহিমা এন্টার প্রাইজের সত্ত্বাধিকারী নীরব হোসেন টুটুল জানান, ইলিশের অধিকাংশ চালান বরিশাল অঞ্চল থেকে যাবে। এখান থেকে রপ্তানির পরিমাণ দেড় থেকে দুই হাজার টন হতে পারে।

ইলিশের দাম বেড়ে যাওয়ার কথা স্বীকার করেছেন বরিশালের মাছ ব্যবসায়ী আবুবকর। তিনি জানান, প্রতি কেজি ইলিশ ১৩০০ টাকা থেকে ১৫০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে ভোলা ও বরগুনার পাথরঘাটায় প্রচুর ইলিশ পাওয়া গেলেও ইলিশের বড় পাইকারী মোকাম পটুয়াখালীর আলীপুর ও মহীপুরে ইলিশ আকাল চলছে বলে জানান মহীপুরের ইলিশ ব্যবসায়ী ফজলু গাজী।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বরিশাল পোর্ট রোড পাইকারি ইলিশ মার্কেটে দেখা যায় রপ্তানির জন্য প্রচুর ইলিশ প্যাকেটজাত হচ্ছে। তবে ইলিশে দাম বৃদ্ধি এটা ব্যবসায়ীদের চক্রান্ত বলে জানান কনজিউমার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-ক্যাব সম্পাদক রনজিৎ দত্ত। তিনি বলেন- রপ্তানির আদেশ পৌঁছাতে না পৌঁছাতে এভাবে দাম বৃদ্ধি হলে ইলিশ জনসাধারণের নাগালের বাইরে চলে যাবে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব জাকির হোসেন জানান, বুধবার বিকেলে ৭৯ জন রপ্তানিকারকের অনুকূলে প্রতি কেজি ১০ ডলার দরে ৫০ টন করে ৩ হাজার ৯৫০ টন ইলিশ আগামী ৩০ অক্টোবরের মধ্যে রপ্তানির অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

মন্ত্রণালয় জানিয়েছে ইলিশের প্রজনন নির্বিঘ্ন করতে আগামী ১২ অক্টোবর থেকে ২ নভেম্বর পর্যন্ত ২২ দিন ইলিশ আহরণ, বিক্রি, মজুদ ও পরিবহনে নিষেধাজ্ঞা থাকবে। এ কারণে ১১ অক্টোবরের মধ্যে ইলিশ রপ্তানি শেষ করতে হবে।

দাকোপের বাজুয়ায় মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে মানববন্ধন

দুর্গাপূজা উপলক্ষে বরিশালে বেড়েছে ইলিশের দাম

আপডেট সময় : ১১:১৪:৪১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩

দুর্গাপূজা উপলক্ষে ভারতে ৩ হাজার ৯৫০ মেট্রিক টন ইলিশ রপ্তানির অনুমতি দিয়েছে সরকার। রপ্তানির অনুমতি দেওয়ার একদিন পরই আজ বেনাপোল দিয়ে প্রায় ৪৬ মেট্রিক টন ইলিশ ভারতে গেছে। এর মধ্যেই বরিশালে আড়তে ইলিশের দাম মণপ্রতি দুই হাজার টাকা বেড়ে গেছে।

বরিশালের মৎস্য কর্মকর্তা (ইলিশ) বিমল চন্দ্র দাস ইলিশের দাম বেড়ে যাওয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গতকাল ৬০০-৯০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ মণপ্রতি ৫২ হাজার টাকায় বিক্রি হলেও আজ বিক্রি হচ্ছে ৫৪ হাজার টাকা।

ইলিশ রপ্তানিকারক মাহিমা এন্টার প্রাইজের সত্ত্বাধিকারী নীরব হোসেন টুটুল জানান, ইলিশের অধিকাংশ চালান বরিশাল অঞ্চল থেকে যাবে। এখান থেকে রপ্তানির পরিমাণ দেড় থেকে দুই হাজার টন হতে পারে।

ইলিশের দাম বেড়ে যাওয়ার কথা স্বীকার করেছেন বরিশালের মাছ ব্যবসায়ী আবুবকর। তিনি জানান, প্রতি কেজি ইলিশ ১৩০০ টাকা থেকে ১৫০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে ভোলা ও বরগুনার পাথরঘাটায় প্রচুর ইলিশ পাওয়া গেলেও ইলিশের বড় পাইকারী মোকাম পটুয়াখালীর আলীপুর ও মহীপুরে ইলিশ আকাল চলছে বলে জানান মহীপুরের ইলিশ ব্যবসায়ী ফজলু গাজী।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বরিশাল পোর্ট রোড পাইকারি ইলিশ মার্কেটে দেখা যায় রপ্তানির জন্য প্রচুর ইলিশ প্যাকেটজাত হচ্ছে। তবে ইলিশে দাম বৃদ্ধি এটা ব্যবসায়ীদের চক্রান্ত বলে জানান কনজিউমার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-ক্যাব সম্পাদক রনজিৎ দত্ত। তিনি বলেন- রপ্তানির আদেশ পৌঁছাতে না পৌঁছাতে এভাবে দাম বৃদ্ধি হলে ইলিশ জনসাধারণের নাগালের বাইরে চলে যাবে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব জাকির হোসেন জানান, বুধবার বিকেলে ৭৯ জন রপ্তানিকারকের অনুকূলে প্রতি কেজি ১০ ডলার দরে ৫০ টন করে ৩ হাজার ৯৫০ টন ইলিশ আগামী ৩০ অক্টোবরের মধ্যে রপ্তানির অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

মন্ত্রণালয় জানিয়েছে ইলিশের প্রজনন নির্বিঘ্ন করতে আগামী ১২ অক্টোবর থেকে ২ নভেম্বর পর্যন্ত ২২ দিন ইলিশ আহরণ, বিক্রি, মজুদ ও পরিবহনে নিষেধাজ্ঞা থাকবে। এ কারণে ১১ অক্টোবরের মধ্যে ইলিশ রপ্তানি শেষ করতে হবে।