ঢাকা ১০:০৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বরিশালে ঝড়ের কবলে পড়ে লঞ্চডুবি

বরিশালে ঝড়ের কবলে পড়ে একটি লঞ্চডুবির ঘটনা ঘটেছে। জেলার মেহেন্দিগঞ্জের কাজিরহাটের পূর্ব ভংগাসংলগ্ন লতা নদীতে এমভি ইনজাম নামের ওই লঞ্চ ডুবে গেছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ জুন) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছেন বরিশাল নদী বন্দর কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক।

তবে এ ঘটনায় কোনো হতাহত বা নিখোঁজের খবর পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন কাজীরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জুবাইর আহমেদ।

তিনি বলেন, সকালে লঞ্চটি হিজলার টেক থেকে ১৫-২০ জন যাত্রী নিয়ে কাজিরহাটের লতা ঘাটের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয়, সেখান থেকে বরিশালের দিকে যাওয়ার কথা ছিল।

তবে লতা ঘাটে পৌঁছানোর পূর্বে হঠাৎ আবহাওয়া খারাপ হয়ে গেলে লঞ্চটিকে পূর্ব ভংগা সংলগ্ন নদীর চরে উঠিয়ে দেয় এর চালক। এরপর যাত্রীরা লঞ্চটি থেকে নিরাপদে নেমেও যায়।

কিছুক্ষণ পর ঝড় শুরু হলে এটি কাত হয়ে ডুবে যায়। বর্তমানে আংশিক ডুবে যাওয়া লঞ্চটিকে উদ্ধারে কাজ করছে সংশ্লিষ্টরা।

তিনি বলেন, খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে পুলিশ সদস্যরা যায়। তবে সবাই লঞ্চ থেকে নেমে যাওয়ার কারণে কোনো হতাহতের ঘটনা নেই।

হিজলা-বরিশাল রুটে চলাচলকারী এমভি ইনজাম লঞ্চের সুকানি নিজাম জানান, সকাল সাড়ে ৬টার দিকে হিজলা থেকে ১৬ জন যাত্রী নিয়ে বরিশালের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করি। সকাল সাড়ে ৭টার দিকে কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই ঝড় শুরু হয়। এতে লঞ্চের তলা ফেটে যায়। দ্রুত আমরা পাড়ে নোঙর করে যাত্রীদের নামিয়ে দিই৷

কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। সবাই নিরাপদে আছেন। আশা করছি আজকের মধ্যে লঞ্চ মেরামত করে কালকের মধ্যে বরিশালে পৌঁছাতে পারব।

বরিশাল নদী বন্দর কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক বলেন, লঞ্চডুবির ঘটনায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। লঞ্চটি থেকে যাত্রীরা নিরাপদে পাড়ে নেমেছেন। ঝড়ে লঞ্চটির পেছনের অংশ ডুবে যায়।

ডুবে যাওয়া অংশ তুলতে এরই মধ্যে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলেও জানান এই বন্দর কর্মকর্তা।

ট্যাগ :

খুলনার দাকোপে ভূমিসেবা সপ্তাহ উদযাপন হয়েছে

বরিশালে ঝড়ের কবলে পড়ে লঞ্চডুবি

আপডেট সময় : ১০:৪৭:২৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ জুন ২০২৩

বরিশালে ঝড়ের কবলে পড়ে একটি লঞ্চডুবির ঘটনা ঘটেছে। জেলার মেহেন্দিগঞ্জের কাজিরহাটের পূর্ব ভংগাসংলগ্ন লতা নদীতে এমভি ইনজাম নামের ওই লঞ্চ ডুবে গেছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ জুন) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছেন বরিশাল নদী বন্দর কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক।

তবে এ ঘটনায় কোনো হতাহত বা নিখোঁজের খবর পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন কাজীরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জুবাইর আহমেদ।

তিনি বলেন, সকালে লঞ্চটি হিজলার টেক থেকে ১৫-২০ জন যাত্রী নিয়ে কাজিরহাটের লতা ঘাটের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয়, সেখান থেকে বরিশালের দিকে যাওয়ার কথা ছিল।

তবে লতা ঘাটে পৌঁছানোর পূর্বে হঠাৎ আবহাওয়া খারাপ হয়ে গেলে লঞ্চটিকে পূর্ব ভংগা সংলগ্ন নদীর চরে উঠিয়ে দেয় এর চালক। এরপর যাত্রীরা লঞ্চটি থেকে নিরাপদে নেমেও যায়।

কিছুক্ষণ পর ঝড় শুরু হলে এটি কাত হয়ে ডুবে যায়। বর্তমানে আংশিক ডুবে যাওয়া লঞ্চটিকে উদ্ধারে কাজ করছে সংশ্লিষ্টরা।

তিনি বলেন, খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে পুলিশ সদস্যরা যায়। তবে সবাই লঞ্চ থেকে নেমে যাওয়ার কারণে কোনো হতাহতের ঘটনা নেই।

হিজলা-বরিশাল রুটে চলাচলকারী এমভি ইনজাম লঞ্চের সুকানি নিজাম জানান, সকাল সাড়ে ৬টার দিকে হিজলা থেকে ১৬ জন যাত্রী নিয়ে বরিশালের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করি। সকাল সাড়ে ৭টার দিকে কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই ঝড় শুরু হয়। এতে লঞ্চের তলা ফেটে যায়। দ্রুত আমরা পাড়ে নোঙর করে যাত্রীদের নামিয়ে দিই৷

কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। সবাই নিরাপদে আছেন। আশা করছি আজকের মধ্যে লঞ্চ মেরামত করে কালকের মধ্যে বরিশালে পৌঁছাতে পারব।

বরিশাল নদী বন্দর কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক বলেন, লঞ্চডুবির ঘটনায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। লঞ্চটি থেকে যাত্রীরা নিরাপদে পাড়ে নেমেছেন। ঝড়ে লঞ্চটির পেছনের অংশ ডুবে যায়।

ডুবে যাওয়া অংশ তুলতে এরই মধ্যে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলেও জানান এই বন্দর কর্মকর্তা।